মুক্তিযোদ্ধা কোটা বাতিল রায়ের স্থগিতাদেশ: আপিল বিভাগের চার সপ্তাহের স্থিতাবস্থা


অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশের সময় : জুলাই ১০, ২০২৪ । ১:১১ অপরাহ্ণ
মুক্তিযোদ্ধা কোটা বাতিল রায়ের স্থগিতাদেশ: আপিল বিভাগের চার সপ্তাহের স্থিতাবস্থা
ফাইল ছবি

সরকারি চাকরির প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণিতে মুক্তিযোদ্ধা কোটা পদ্ধতি বাতিলের সিদ্ধান্ত অবৈধ ঘোষণা করে হাইকোর্টের দেওয়া রায়ে আপিল বিভাগ চার সপ্তাহের স্থিতাবস্থা জারি করেছেন। এর ফলে, হাইকোর্টের রায়ের আগে যে অবস্থা ছিল সেই অবস্থায় সব কিছু থাকবে। আপিল বিভাগ আগামী ৭ আগস্ট পরবর্তী শুনানির জন্য দিন ধার্য করেছেন। প্রধান বিচারপতি ওবায়দুল হাসানের নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের আপিল বেঞ্চ আজ বুধবার এই আদেশ দেন।

অ্যাটর্নি জেনারেল এ এম আমিনউদ্দিন এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। আইনজীবীরা জানান, আপিল বিভাগের আদেশের ফলে মুক্তিযোদ্ধা কোটা বাতিল করে ২০১৮ সালে জারি করা পরিপত্রটি বহাল থাকবে।

প্রধান বিচারপতি শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন, “অনেক হয়েছে। এখন যার যার ক্লাসে মনোনিবেশ করুন।” তিনি আরও জানান, হাইকোর্টের দেওয়া রায়ের ওপর চার সপ্তাহের স্থিতাবস্থা থাকবে এবং পূর্ণাঙ্গ রায় পাওয়ার পর কোটা সংক্রান্ত বিষয়ে শুনানি হবে। এই সময় পর্যন্ত হাইকোর্টের রায়ের ওপর স্থিতাবস্থা থাকবে।

শুনানিতে আদালত বলেন, “আমরা দুই পক্ষের কথা শুনব। আন্দোলন করে রায় পরিবর্তন করা যাবে না। আন্দোলনকারীদের মতামত থাকতে পারে, তারা যদি আইনজীবীর মাধ্যমে আমাদের কাছে আসেন তাহলে আমরা তাদের কথা শুনব এবং ন্যায্য অধিকার বিবেচনা করব। কিন্তু এটা নিয়ে রাজপথে আন্দোলন করা যাবে না, পরিবেশ নষ্ট করা যাবে না।” আন্দোলনকারীদের পাঠে মনোনিবেশ করার আহ্বান জানান প্রধান বিচারপতি।

এদিকে, কোটা সংস্কারের দাবিতে আজ বুধবার সকাল থেকে সারাদেশে সর্বাত্মক ‘বাংলা ব্লকেড’ কর্মসূচি পালন করছেন শিক্ষার্থীরা। সকাল পৌনে ১০টা থেকে রাজধানীর শাহবাগ, শিক্ষা চত্বর, সায়েন্সল্যাব, ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল (ঢামেক) সংলগ্ন মেয়র হানিফ ফ্লাইওভার, মহাখালীতে সড়ক অবরোধ করেন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। এছাড়া ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক অবরোধ করেছেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

পুরোনো সংখ্যা

শনি রবি সোম মঙ্গল বু বৃহ শুক্র
 
১০১১
১৩১৫১৬১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭৩০৩১