সর্বশেষ :

গ্রুপ-সি ফেবারিট ইংল্যান্ড শেষ পর্যন্ত যেতে চায়


অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশের সময় : জুন ১১, ২০২৪ । ৬:২৫ অপরাহ্ণ
গ্রুপ-সি ফেবারিট ইংল্যান্ড শেষ পর্যন্ত যেতে চায়

ইউরো ২০২৪ চ্যাম্পিয়নশীপে শেষ পর্যন্ত যাবার ক্ষুধা নিয়েই মাঠে নামবে গ্রুপ-সি ফেবারিট ইংল্যান্ড। ৫৮ বছরের ইতিহাসে এই প্রথমবারের মত বড় কোন টুর্নামেন্ট জয়ের অপেক্ষার অবসান চায় গ্যারেথ সাউথগেটের দল।

গ্রুপ পর্বে ইংল্যান্ডের প্রতিপক্ষ সার্বিয়া, ডেনমার্ক ও স্লোভেনিয়া। সাম্প্রতিক সময়ে বেশ কিছু টুর্নামেন্টে শিরোপার কাছে গিয়েও হতাশ হতে হয়েছে ইংল্যান্ডকে। জার্মানী যাবার আগে অবশ্য সেই হতাশা থেকে বেরিয়ে আসার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে ইংলিশরা।

করোনা মহামারির কারনে এক বছর পিছিয়ে ২০২১ সালে আয়োজিত সর্বশেষ ইউরো আসরে ওয়েম্বলিতে ফাইনালে ইতালির কাছে পেনাল্টিতে পরাজিত হয়ে হতাশ হতে হয়েছিল থ্রি লায়ন্সদের।

২০১৮ বিশ^কাপের সেমিফাইনালে ক্রোয়েশিয়ার কাছে পরাজিত হয়ে বিদায় নেয়। চার বছর পর কাতারে কোয়ার্টার ফাইনালে ফ্রান্সের কাছে পরাজয় বরণ করতে হয়। ম্যাচের শেষ ভাগে অধিনায়ক হ্যারি কেন পেনাল্টি মিস করেছিলেন। যার খেসারত দিতে হয়েছে ইংল্যান্ডকে।

আর এসবই ১৯৬৬ সালে ববি মুরের হাতে সর্বশেষ ওঠা বিশ^কাপের ট্রফির পর আরো একটি শিরোপার জন্য আকাঙ্খা বাড়িয়েছে ইংলিশদের।

হ্যারি কেন, জুড বেলিংহাম, ফিল ফোডেনের মত বিশ^মানের খেলোয়াড়দের নিয়ে তৈরী এবারের দলটি দুই বছর আগে বিশ^কাপের রানার্স-আপ ফ্রান্স ও স্বাগতিক জার্মানীর পাশে বাজিকরদের কাছে টুর্নামেন্টের হট ফেবারিট দলের তকমা পেয়ে গেছে।

এটাই হয়তো ইংলিশ বস হিসেবে সাউথগেটের সর্বশেষ টুর্নামেন্ট। তার সাথে ইংল্যান্ডের বর্তমান চুক্তির মেয়াদ ডিসেম্বরে শেষ হচ্ছে। আগামী ১৪ জুলাই বার্লিনে ইউরোর আরো

একটি ফাইনালে দলকে নিয়ে যাওয়াই এখন সাউথগেটের মূল লক্ষ্য। ইংলিশ বস বলেছেন, ‘সবাই সেই দিনটির অপেক্ষায় আছে, আমরা কবে ইউরো জিতবো।

আমি যদি বলি সেটা হবে না তবে আমাকে সবাই বোকা বলবে। আবার একইসাথে যদি বলি আমরা পারবো তার অর্থ এই নয় যে, আমাদের সামনে কাজ করার কিছু নেই।

আমরা শিরোপার কাছাকাছি গিয়েছি, যে কারনে বলাই যায় আমরাও শিরোপার দাবীদার। খেলোয়াড়রা জানে আমাদের পক্ষে কি করা সম্ভব। ক্লাব পর্যায়ে তারা প্রত্যেকেই কিছু না কিছু অর্জণ করেছে।


আগামী ১৬ জুন জেলসেনকার্চেনে সার্বিয়ার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে ইংল্যান্ড ইউরো যাত্রা শুরু করবে। বাছাইপর্বে হাঙ্গেরির পর গ্রুপের দ্বিতীয় দল হিসেবে সার্বিয়া মূল পর্বে খেলতে এসেছে। ২০০৬ সালে মন্টেনেগ্রোর ম্যাচের পর এই প্রথম সার্বিয়ার মুখোমুখি হতে যাচ্ছে ইংল্যান্ড।

বাছাইপর্বে আট ম্যাচে অপরাজিত ছিল সাউথগেটের দল। চারদিন পর ফ্রাঙ্কফুর্টে তাদের প্রতিপক্ষ ডেনমার্ক। ২৫ জুন কোলনে শেষ ম্যাচে স্লোভেনিয়ার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে গ্রুপ পর্ব শেষ করবে হ্যারি কেনের দল।

প্রথমবারের মত ইউরোপীয়ান চ্যাম্পিয়নশীপ জেতার লক্ষ্যে মাঠে নামতে যাওয়া ইংল্যান্ড গ্রুপ-সি’র শীর্ষ দল হতে পারলে পরের রাউন্ডে বড় সুবিধা পাবে। শেষ ষোলতে তাদের প্রতিপক্ষ হবে গ্রুপ-ডি, ই ও এফ’র তৃতীয় দল। আর যদি গ্রুপ পর্বে দ্বিতীয় হয় তবে শেষ ষোলতে তাদের সম্ভাব্য প্রতিপক্ষ জার্মানী।

গ্রুপে ইংল্যান্ডের সবচেয়ে কঠিন প্রতিপক্ষ হতে পারে ডেনমার্ক। ইউরো ২০২০’র সেমিফাইনালে ডেনমার্কের কঠিন পরীক্ষার মুখে পড়তে হয়েছিল ই্যংান্ডকে। অতিরিক্ত সময়ে ২-১ গোলে জয়ী হয়ে সাউথগেটের শিষ্যরা ফাইনাল নিশ্চিত করে।

১৯৯২ ইউরো বিজয়ী ডেনমার্ক সর্বশেষ বিশ^কাপে গ্রুপ পর্বের বাঁধা পেরুতে পারেনি। তবে জার্মানীতে বিস্ময়কর কিছু করতে মুখিয়ে আছে কাসপার হালমান্ডের দল।

এনিয়ে মাত্র চতুর্থবারের মত বড় কোন টুর্ণামেন্টে খেলতে এসেছে স্লোভেনিয়া। ২০১০ বিশ^কাপের পর এটাই প্রথম। ২৪ বছরে প্রথমবারের মত ইউরোর মূল পর্বে খেলতে আসা মাটাজ কেকের দল প্রথমবারের মত নক আউট পর্বে খেলার লক্ষ্যে মাঠে নামবে।

এদিকে সার্বিয়া জুভেন্টাস স্ট্রাইকার ডুসান ভøাহোভিচ, ফেনারবাচ ফরোয়ার্ড ডুসান টাচিচ ও এসি মিলান স্ট্রাইকার লুকা জোভিচের উপর নির্ভর করে নক আউট পর্বে খেলার স্বপ্ন পূরণ করতে চায়।

 

সুত্রঃ বাসস

পুরোনো সংখ্যা

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০