আমরা স্কুলের বাচ্চা নই: জয়া


অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশের সময় : ফেব্রুয়ারি ৮, ২০২৪ । ১১:৪৩ পূর্বাহ্ণ
আমরা স্কুলের বাচ্চা নই: জয়া

মেজাজ হারালেন সমাজবাদী পার্টির সাংসদ তথা অভিনেত্রী জয়া বচ্চন। রাজ্যসভায় প্রশ্নোত্তর পর্বে একটি প্রশ্ন এগিয়ে যাওয়ায় তিনি বেজায় ক্ষুব্ধ হন। রাজ্যসভার চেয়ারম্যান জগদীপ ধনখড় তাকে শান্ত করার চেষ্টা করেন। তখন জয়া জগদীপের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘আমরা স্কুলের পড়ুয়া নয়।’ একই সঙ্গে সংসদ সদস্যদের সঙ্গে সম্মানের সঙ্গে আচরণ করার দাবি করেন জয়া বচ্চন। খবর হিন্দুস্তান টাইমসের।

রাজ্যসভায় প্রশ্নোত্তর পর্বে ডেপুটি চেয়ারম্যান বিমান মন্ত্রালয় সংক্রান্ত ১৮ নম্বর প্রশ্নটি এড়িয়ে যান। এর প্রতিবাদে সরব হন কংগ্রেস সংসদ সদস্য দীপঙ্কর হুডা এবং বিরোধীদলের অন্যান্য সদস্যরা। তাদের সঙ্গে জয়া বচ্চনও প্রতিবাদ জানান। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে তুমুল হট্টগোল শুরু হয় রাজ্য সভায়। সেই সময় ধনখড় বিরোধী সাংসদের উদ্দেশে বলেন, ‘আপনারা তার মুখপাত্র নন। তিনি নিজেই একজন সিনিয়র সদস্য।’

সেই সময় জয়া বচ্চন প্রশ্নটি কেন এড়িয়ে যাওয়া হল তা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন। জয়া বচ্চন বলেন, ‘সমস্যাটি তাদের ব্যাখ্যা করা হলে তারা তা বুঝতে পারতেন। তারা স্কুলছাত্র নন।’ জয়া বচ্চনকে শান্ত করার জন্য চেয়ারম্যান তাকে বলেন, ‘আমি জয়া বচ্চন জিকে অনুরোধ করব, জয়া জি আপনি খুব সিনিয়র সদস্য। আমাদের সকলকে উৎসাহিত করুন। আমি নিশ্চিত যে আপনার মতো একজন দুর্দান্ত অভিনেত্রীও অবশ্যই অনেক রিটেক নিয়েছেন।’

জয়া বচ্চন চেয়ারম্যানের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘ডেপুটি চেয়ারম্যানের প্রতি তার অগাধ শ্রদ্ধা রয়েছে। আপনি বা ডেপুটি চেয়ারম্যান যদি আমাদের বসতে বলেন তাহলে আমরা বসব। কিন্তু অন্য সদস্য আমাদের দিকে ইঙ্গিত করে বসতে বললে আমরা তা করব না। প্রশ্ন করা আমাদের অধিকার।

একটি প্রশ্ন বা একটি সমস্যা আছে এবং এটি পরে নেওয়া যেতে পারে। আমরা বুঝতে পারি আমরা স্কুলছাত্রী নই। তবে আমাদের সঙ্গে সম্মানের সঙ্গে আচরণ করুন।’ তার মন্তব্যের জবাবে ধনখড় বলেন, ‘আমি মনে করি কেউ অনুভূতিকে কেউ অস্বীকার করবে না। হাউসটি নিয়মের মধ্যেই চলে।’ পরে কেদারা জানিয়ে দেন, ১৯ নম্বর প্রশ্নের আলোচনার পর ১৮ নম্বর প্রশ্নটি নিয়ে আলোচনা হবে।

 

সূত্র: দৈ/যু

পুরোনো সংখ্যা

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯