সর্বশেষ :

বগুড়ায় অপহৃত পাঁচজন নৃত্যশিল্পীকে উদ্ধার করেছে পুলিশ


নুরনবী রহমান স্টাফ রিপোর্টারঃ
প্রকাশের সময় : ফেব্রুয়ারি ৭, ২০২৪ । ৮:৪৭ অপরাহ্ণ
বগুড়ায় অপহৃত পাঁচজন নৃত্যশিল্পীকে উদ্ধার করেছে পুলিশ
(৭ জানুয়ারি) বুধবার ভোর ৫ টার দিকে বগুড়া  গাবতলী উপজেলার রামেশ্বরপুর ইউনিয়নের পাঁচকাতুলী বুড়িতলায় একটি পরিত্যক্ত গোডাউন থেকে তাদের উদ্ধার করা হয়। এ সময় অপহরণ ও মুক্তিপণ দাবির অভিযোগে চার যুবককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।
গ্রেপ্তার ব্যক্তিরা হলেন- বগুড়ার গাবতলী উপজেলার পাঁচকাতুলীর (পশ্চিমপাড়া) সাফিন মিয়া, আব্দুস ছালাম, মামুনুর রশিদ ওরফে নীরব হোসেন এবং মোন্তাসির।
যে পাঁচজন নৃত্যশিল্পীকে উদ্ধার করা হয়েছে তারা হলেন- মোস্তাকিম, তাহাজ্জত, অর্কো, সামিয়া ও জয় শেখ। গাবতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কালাম আজাদ এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
তিনি বলেন, নৃত্যশিল্পীদের অপহরণ করে মুক্তিপণের দাবির অভিযোগে ওই চার যুবককে আটক করা হয়েছে। বাকি চারজন পলাতক রয়েছে। তাদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। এ ছাড়া আটক ওই চারজনের প্রত্যেককে ৫ দিন করে রিমান্ড নিতে আবেদন করা হয়েছে।
অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, বগুড়া সদরের বুজর্গধামা এলাকার মোন্তসির পেশায় একজন ফটোগ্রাফার। গত মঙ্গলবার এক বন্ধু তাকে ফোন দিয়ে গাবতলীর রামেশ্বরপুরের পাঁচকাতুলী পশ্চিমপাড়া গ্রামে একটি অনুষ্ঠানের কথা জানায়।
সেইসঙ্গে একজন নারী নৃত্যশিল্পীকে অনুষ্ঠানে নেওয়ার কথা বলে। তখন মোন্তসির তার আরেক বন্ধু অর্কের সাহায্যে ঠনঠনিয়া কলোনি এলাকার নৃত্যশিল্পী সামিয়া ওরফে পপিকে অনুষ্ঠানের কথা জানালে তিনি রাজি হন।
ওইদিন বিকাল ৪টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত মোস্তাকিম, তাহাজ্জত, অর্কো, সামিয়া ও জয় শেখ উপজেলার পাঁচকাতুলী পশ্চিমপাড়া গ্রামে প্রোগ্রাম করেন। তবে অনুষ্ঠানে সুষ্ঠু পরিবেশ না থাকায় তারা রাতেই বগুড়ায় ফেরার উদ্দেশে বের হন।
কিন্তু পথেই তাদের সিএনজি অটোরিকশা নষ্ট হয়ে যায়। সবাই তখন পায়ে হেঁটে রওনা দেয়। রাত সাড়ে ১০টার দিকে পাঁচকাতুলী বুড়িতলা গ্রামের পাঁচকাতুলী জামে মসজিদের সামনে পৌঁছালে অস্ত্রসহ ৮-১০ জন যুবক তাদের পথরোধ করে। এরপর তাদেরকে রশি দিয়ে বেঁধে ৩টি সিএনজি অটোরিকশায় তুলে অপহরণ করে ওই পরিত্যাক্ত গোডাউনে আটকে রাখা হয়।
এ সময় অপহরণকারীরা ওই পাঁচ নৃত্যশিল্পীর কাছ থেকে নগদ ১২ হাজার ৫০০ টাকা ছিনিয়ে নেয় এবং ২ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। তা না হলে তাদের প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে নির্যাতন করে। এক পর্যায়ে অপহৃতরা তাদের আত্মীয়দের মুক্তিপণের বিষয়টি জানান। তখন মামুন শেখ নামে পপির এক আত্মীয় জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ এ কল দিয়ে বিষয়টি জানায়।
অপহৃতদের উদ্ধার করতে পুলিশ ওই রাতেই অভিযানে নামে। একপর্যায়ে ভোর ৫টার দিকে গাবতলী উপজেলার রামেশ্বরপুর ইউনিয়নের পাঁচকাতুলী বুড়িতলায় একটি পরিত্যক্ত গোডাউনের বাইরে কিছু যুবকদের অবস্থান টের পেয়ে পুলিশ সেখানে গাড়ি থামায়।
এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ৪ জন পালিয়ে গেলেও বাকি ৪ অপহরণকারীকে আটক করা হয়। এ ছাড়া গোডাউনের ভেতর থেকে অপহৃত ওই পাঁচ নৃত্যশিল্পীকে উদ্ধার করে পুলিশ।
ওসি আবুল কালাম আজাদ আরও বলেন, ওই অভিযোগ পরে মামলা হিসেবে নেওয়া হয়েছে। মামলায় আটক চারজনকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে অপহরণকারী ওই চার যুবক অন্যদের নাম জানিয়েছে। তারা হলো ওই এলাকার আরিফুল ইসলাম রাঙ্গা, হৃদয়, শাহেদ ও আপেল। তাদের মধ্যে আরিফুল ও রাঙ্গা সব টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়।

পুরোনো সংখ্যা

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯