কিং-পাওয়েলের ব্যাটিংয়ে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ডাবল লিড ওয়েস্ট ইন্ডিজের


অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশের সময় : ডিসেম্বর ১৫, ২০২৩ । ৪:৩৫ অপরাহ্ণ
কিং-পাওয়েলের ব্যাটিংয়ে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ডাবল লিড ওয়েস্ট ইন্ডিজের

দুই ব্যাটার ব্রান্ডন কিং ও অধিনায়ক রোভম্যান পাওয়েলের ঝড়ো হাফ-সেঞ্চুরির সুবাদে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজে ডাবল লিড নিলো স্বাগতিক ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

গতরাতে সিরিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ১০ রানে হারিয়েছে বিশ^ চ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ডকে। ৫৪ রানে চতুর্থ উইকেট পতনের পর কিং ৫২ বলে অপরাজিত ৮২ ও পাওয়েল ২৮ বলে ৫০ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলেন। সিরিজের প্রথম ম্যাচ ৪ উইকেটে জিতেছিলো ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

গ্রেনাডা টস জিতে প্রথমে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ব্যাটিংয়ে পাঠায় ইংল্যান্ড। ব্যাট হাতে নেমে ৩৪ বলে ৪৩ রানের ভালো সূচনা করে ক্যারিবীয়রা। এরপর ১১ রানের ব্যবধানে ৪ উইকেট হারায় তারা। ওপেনার কাইল মায়ার্স ১৭, নিকোলাস পুরান ৫, শাই হোপ ১ ও শিমরোন হেটমায়ার ২ রানে ফিরেন।

নবম ওভারে ৫৪ রানে চতুর্থ উইকেট পতনের পর দলকে লড়াইয়ে ফেরানোর দায়িত্ব পালন করেন আরেক ওপেনার কিং ও পাওয়েল। দ্রুত পরিস্থিতির সাথে মানিয়ে নিয়ে ইংল্যান্ডের বোলারদের উপর চড়াও হন তারা। ৩৩ বলে টি-টোয়েন্টি অষ্টম হাফ-সেঞ্চুরির দেখা পান কিং।

১৩ থেকে ১৭তম ওভারের মধ্যে ৮০ রান তুলেন কিং ও পাওয়েল। এরমধ্যে রেহান আহমেদের করা ১৩তম ওভারে ১৭, স্যাম কারানের করা ১৬তম ওভারে ৩০ রান ছিলো উল্লেখযোগ্য । ২৭ বলে টি-টোয়েন্টিতে পঞ্চম অর্ধশতক করে কারানের শিকার হন ৩টি চার ও ৫টি ছক্কায় ২৮ বলে ৫০ রান করা পাওয়েল ।

ইনিংসের শেষ পর্যন্ত খেলে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ২০ ওভারে ৭ উইকেটে ১৭৬ রানের লড়াকু সংগ্রহ এনে দেন কিং। ৮টি বাউন্ডারি ও ৫টি ওভার বাউন্ডারিতে ৫২ বলে অনবদ্য ৮২ রান করেন কিং। ইংল্যান্ডের আদিল রশিদ ও তাইমাল মিলস ২টি করে উইকেট নেন।

জবাবে খেলতে নেমে তৃতীয় ওভারে ব্যক্তিগত ৫ রানে আউট হন ইংল্যান্ড অধিনায়ক জশ বাটলার। দ্বিতীয় উইকেটে ৩২ বলে ৪৬ রান যোগ করে দলকে খেলায় ফেরান আরেক ওপেনার সল্ট ও উইল জ্যাকস। সল্ট ২৫ ও জ্যাকস ২৪ রানে আউট হন।
মিডল অর্ডারে লিয়াম লিভিংস্টোন ১৭ ও হ্যারি ব্রুক ৫ রানে আউট হলে, লড়াই থেকে ছিটকে পড়ে ইংল্যান্ড।

তারপরও অন্যপ্রান্তে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বোলারদের উপর ব্যাট হাতে চড়াও ছিলেন চার নম্বরে নামা কারান। ঝড়ো ব্যাটিংয়ে ৩১ বলে টি-টোয়েন্টিতে প্রথম হাফ-সেঞ্চুরি পূর্ন করেন তিনি। হাফ-সেঞ্চুরি করার  পরের ডেলিভারিতে পেসার আলজারি জোসেফের শিকার হন কারান। ৪টি চার ও ৩টি ছক্কায় ৩২ বলে ৫০ রান করেন তিনি।

কারান যখন ফিরেন, তখন ৫ উইকেট হাতে নিয়ে ১৭ বলে ৪৩ রান দরকার ছিলো ইংল্যান্ডের। মারমুখী ব্যাটিংয়ে শেষ চেষ্টা করেও সফল হননি মঈন আলি ও রেহান। শেষ ওভারে ২৮ রানের দরকারে ১৮ রান তুলতে পারেন মঈন ও রেহান।

২০ ওভারে ৭ উইকেটে ১৬৬ রান করে ম্যাচ হারে ইংল্যান্ড। মঈন ১৩ বলে অপরাজিত ২২ ও রেহান ৩ বলে অপরাজিত ১০ রান করেন।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের জোসেফ ৩টি ও আকিল ২টি উইকেট নেন। ম্যাচ সেরা হন কিং।২-০ ব্যবধানে এগিয়ে থেকে আগামীকাল একই ভেন্যুতে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজের তৃতীয় টি-টোয়েন্টি খেলতে নামবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

 

সূত্র : বাসস

পুরোনো সংখ্যা

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১