ভূমিকম্পের ঘনঘন আঘাত; এখনই প্রস্তুতি ও সতর্কতা জরুরি


আল-আমিন
প্রকাশের সময় : ডিসেম্বর ১৪, ২০২৩ । ৬:৩৫ অপরাহ্ণ
ভূমিকম্পের ঘনঘন আঘাত; এখনই প্রস্তুতি ও সতর্কতা জরুরি
প্রতীকী ছবি

বাংলাদেশ ভূমিকম্পের ঝুঁকিতে থাকা একটি দেশ। সাম্প্রতিক সময়ে দেশে ভূমিকম্পের ঘটনা বৃদ্ধি পাওয়ায় বিশেষজ্ঞরা উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন।

গত ২ ডিসেম্বর সকাল ৯টা ৩৫ মিনিট ৩৩ সেকেন্ডে লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জ অঞ্চলে ৫ দশমিক ৬ মাত্রার ভূমিকম্প অনুভূত হয়। এই ভূমিকম্পে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি, তবে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বাংলাদেশ ভূমিকম্পের ঝুঁকিতে থাকা একটি দেশ। দেশের চারদিকে ভয়াবহ ভূমিকম্পবলয় তৈরি হয়েছে। বিশেষ করে উত্তর ও উত্তর-পূর্ব ভারতের অঞ্চল আমাদের জন্য জন্য অশনিসংকেত হিসেবে দেখা দিয়েছে।

এই অঞ্চলগুলো থেকে প্রায় সময়ই মাঝারি মাত্রার ভূমিকম্পের উত্পত্তি হচ্ছে। এর আঘাত সরাসরি এসে পড়ছে বাংলাদেশের বিভিন্ন অঞ্চলের ওপর।

অতীতের মতো সাম্প্রতিক কালেও এসব এলাকা থেকে বড় ভূমিকম্প সৃষ্টি হওয়ার নজির রয়েছে। বিশেষ করে সিকিম, উত্তর-পূর্বে আসাম ও এর আশপাশের এলাকা থেকে এখন প্রায়ই ভূমিকম্প সৃষ্টি হচ্ছে।

সাম্প্রতিক সময়ে ঘটে যাওয়া ঘনঘন ভূমিকম্পের কারণে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বড় ধরনের ভূমিকম্প সংঘটিত হওয়ার জন্য দেশের ভেতরে ও বাইরে ভূ-অভ্যন্তরে অধিক শক্তি জমা হয়েছে। যে কোনো মুহূর্তে ভূমিকম্পের মাধ্যমে তা বেরিয়ে আসতে পারে।

ভূমিকম্প এমন একটি প্রাকৃতিক দুর্যোগ, যাকে আটকানোর কোনো পথ নেই। এ অবস্থায় সচেতনতা ও সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নেওয়া ছাড়া কোনো গত্যন্তর নেই। বিশেষ করে সময় থাকতেই এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি নিতে হবে।

ভূমিকম্প মোকাবিলায় প্রয়োজন সরকারি ও বেসরকারি পর্যায়ে ব্যাপক প্রচারাভিযান। সরকারি উদ্যোগে ফায়ার সার্ভিস, ভূমিকম্প ব্যবস্থাপনা বাহিনী ও স্বেচ্ছাসেবক বাহিনীকে প্রশিক্ষণের মাধ্যমে সব সময় প্রস্তুত রাখতে হবে।

ভূমিকম্পের সময় দালান ভেঙে পড়ে বেশি মানুষের ক্ষতি হয়। তাই নির্মাণাধীন বাড়িগুলো বিল্ডিং কোড মেনে তৈরি করা হচ্ছে কি না, কর্তৃপক্ষকে সে ব্যাপারে তদারকি জোরদার করতে হবে।

উপকূলীয় এলাকা, যেখানে সুনামি, ভূমিকম্প সব ধরনের প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতির আশঙ্কা বেশি থাকে, সেখানে তৈরি করতে হবে অনেক আশ্রয়কেন্দ্র, যাতে মানুষ বিপদের সংকেত পাওয়ামাত্রই আশ্রয়কেন্দ্রে আশ্রয় নিতে পারে।

ভূমিকম্পের ঝুঁকি থেকে বাংলাদেশকে রক্ষা করার জন্য এখনই ব্যাপক প্রস্তুতি নেওয়া জরুরি। ভূমিকম্পের সময় করণীয় সম্পর্কে জনসাধারণকে সচেতন করা এবং বিল্ডিং কোড মেনে নির্মাণকাজ পরিচালনা করা জরুরি।

লেখক,

সাংবাদিক ও কলামিস্ট

পুরোনো সংখ্যা

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১