সর্বশেষ :

চ্যাম্পিয়ন্স লিগ: উত্তেজনাপূর্ণ ম্যাচে ইউনিয়ন বার্লিনের বিপক্ষে ৩-২ গোলে জয়ী রিয়াল মাদ্রিদ


অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশের সময় : ডিসেম্বর ১৩, ২০২৩ । ৬:১৩ অপরাহ্ণ
চ্যাম্পিয়ন্স লিগ: উত্তেজনাপূর্ণ ম্যাচে ইউনিয়ন বার্লিনের বিপক্ষে ৩-২ গোলে জয়ী রিয়াল মাদ্রিদ

ডানি সেবালোসের শেষ মিনিটের গোলে ইউনিয়ন বার্লিনকে মঙ্গলবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ৩-২ ব্যবধানে  পরাজিত করেছে রিয়াল মাদ্রিদ। এর মাধ্যমে গ্রুপ পর্বে ছয় ম্যাচে শতভাগ জয় নিয়ে আগেই নক আউট পর্ব নিশ্চিত করা রিয়াল নিজেদের আত্মবিশ্বাস ধরে রাখলো।

গ্রুপ পর্বের শীর্ষস্থানও আগেই নিশ্চিত হয়েছিল। বার্লিনের মাঠে অবশ্য শুরুটা ভাল হয়নি কার্লো আনচেলত্তির দলের। বিরতির ঠিক আগে লুকা মড্রিচের পেনাল্টির সেভে কাউন্টার এ্যাটাক থেকে স্ট্রাইকার কেভিন ফলান্ডের গোলে এগিয়ে যায় ইউনিয়ন।

ইতোমধ্যেই চ্যাম্পিয়ন্স লিগ থেকে বিদায়ে ইউনিয়নের সামনে হারানোর কিছু ছিলনা। শুধুমাত্র ইউরোপা লিগের আশা টিকিয়ে রাখার জন্য এই ম্যাচে জয় প্রয়োজন ছিল। কিন্তু ১০ মিনিটের মধ্যে জোসেলুর দুই গোলে স্বপ্নভঙ্গ হয় স্বাগতিকদের।

৭২ মিনিটে জোসেলু নিজের দ্বিতীয় গোল করলে বার্লিন অলিম্পিক স্টেডিয়াম নিশ্চুপ হয়ে যায়। ৮৫ মিনিটে এ্যালেক্স ক্রাল স্বাগতিকদের কিছুটা আশা জাগিয়ে তুলেন। কিন্তু সেবালোসের ডিফ্লেকটেড শটে রিয়ালের জয় নিশ্চিত হয়।

মাদ্রিদ কোচ কার্লো আনচেলত্তি জানিয়েছেন তার দল শেষ ৪০ মিনিটে দারুন নিয়ন্ত্রিত ফুটবল খেলেছে। বিশেষ করে গোলের সুযোগগুলো নষ্ট না হওয়ায় তিনি স্বস্তি প্রকাশ করেছেন।

ইউনিয়ন কোচ নেনাদ বেলিসা বলেছেন, ‘রিয়াল মাদ্রিদ এমন একটি দল যাদের বিপক্ষে প্রতিরোধ গড়ে তোলা প্রায় অসম্ভব। কখনই তারা ম্যাচ ছেড়ে দেয়না। যদিও আজ আমরা ভাল খেলেছি।’

এর আগে মাদ্রিদের মাঠে ও ব্রাগার বিপক্ষে বার্লিনে শেষ মুহূর্তে গোল হজম করে ইউনিয়ন পয়েন্ট হারিয়েছেন। বেলিসা বলেছেন, এটা দলের জন্য সত্যিই দূর্ভাগ্যের। আমরা চেষ্টা করেছি। এগুলো থেকে আমাদের শিক্ষা নিতে হবে এবং ভবিষ্যতে ভাল খেলতে হবে।’

এই পরাজয়ে ইউনিয়ন প্রথমবারের মত চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলতে এসে খালি হাতে বিদায় নিচ্ছে। বুন্দেসলিগায় চতুর্থ মৌসুমে খেলা ইউনিয়ন ছয় ম্যাচে দুটি ড্র ও চার পরাজয় নিয়ে ইউরোপীয়ান মিশন শেষ করলো।

ইউনিয়নের ডাগ আউটে এনিয়ে চতুর্থ ম্যাচে দায়িত্ব পালন করেছেন বেলিসা। ম্যাচের আগেই তিনি রিয়াল তারকা জুড বেলিংহামের প্রশংসা করেছেন। যদিও একইসাথে বলেছেন মড্রিচ এখনো তার পজিশনে বিশ্ব সেরা।

৩৮ বছর বয়সী অভিজ্ঞ ক্রোয়েশিয়ান মিডফিল্ডার মড্রিচের চেয়ে  প্রায় অর্ধেক  ২০ বছর বয়সী  বেলিংহাম ম্যাচের শুরুতেই গোলের সুযোগ পেয়েছিলেন।

তার শট গোলরক্ষক ফেডেরিক রনো দারুনভাবে রুখে দেন। তার পরের শটটি পোস্টের বাইরে দিয়ে চলে যায়। ১৪ বারের চ্যাম্পিয়ন্স লিগ বিজয়ীরা এভাবেই শুরু থেকেই আধিপত্য দেখাতে থাকে।

পাঁচ পরিবর্তন নিয়ে আনচেলত্তি দল সাজালেও পজিশনের দিক থেকে মাদ্রিদই এগিয়ে ছিল। বিরতির ঠিক আগে দিয়েগো লেইটের হ্যান্ডবলে মাদ্রিদ পেনাল্টি উপহার পায়।

স্পট কিক থেকে অবশ্য মড্রিচ সুবিধা করতে পারেননি। তার লো শটটি ডানদিকে ডাইভ দিয়ে রনো রুখে দেন। সব ধরনের প্রতিযোগিতায় এনিয়ে পাঁচটি পেনাল্টি সেভ করেছে ইউনিয়নের এই গোলরক্ষক। ড্যানিশ এই গোলরক্ষক সাথে সাথে বল বাড়িয়ে দিলে কাউন্টার এ্যাটাক থেকে ডেভিড আলাবার ভুলে ফল্যান্ড গোল করে ইউনিয়নকে এগিয়ে দেন।

বিরতির পর মাদ্রিদ তাদের অভিজ্ঞতার পরিচয় দিতে থাকে। এক গোলে পিছিয়ে থেকেও মাথা ঠান্ডা রেখে এগিয়ে যেতে থাকে। তারই ধারাবাহিকতায় ৬১ মিনেিট রডরিগোর নিখুঁত ক্রসে জোসেলুর হেডে সমতায় ফিরে মাদ্রিদ। ১০ মিনিট পর ব্যবধান দ্বিগুন করেন মাদ্রিদের এই স্ট্রাইকার।

৩৩ বছর বয়সে মার্চে স্পেনের হয়ে অভিষেক হওয়া জার্মানীতে জন্ম নেয়া জোসেলু এবারের গ্রীষ্মে এস্পানিয়ল থেকে ধারে মাদ্রিদে আসার পর ২১ ম্যাচে আট গোল করেছেন।

ক্রালের গোলে ইউনিয়ন কিছুটা আশা পেলেও তা ভঙ্গ করে দেন সেবালোস। বেলিংহামের পাসে সেবালোসের গোলের মাদ্রিদের ছয় ম্যাচে ষষ্ঠ জয় নিশ্চিত হয়।
 

সূত্র : বাসস

পুরোনো সংখ্যা

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১