সর্বশেষ :

সাকিবকেই দীর্ঘমেয়াদে অধিনায়ক হিসেবে দেখতে চায় বিসিবি


অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশের সময় : ডিসেম্বর ১২, ২০২৩ । ৭:২১ অপরাহ্ণ
সাকিবকেই দীর্ঘমেয়াদে অধিনায়ক হিসেবে দেখতে চায় বিসিবি

বিশ্বকাপ চলাকালীন পাওয়া আঙুলের ইনজুরি থেকে সুস্থ হয়ে ওঠার পর তিন ফরম্যাটেই জাতীয় দলের অধিনায়ক হিসেবে সাকিব আল হাসানকে  চায় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

বিশ^কাপের আগেই মেগা ইভেন্ট শেষে অধিনায়ক ছাড়ার ঘোষনা দিয়েছিলেন সাকিব। তার অনুপস্থিতিতে দলের দায়িত্ব পান নাজমুল হোসেন শান্ত। যে কারণে ভবিষ্যত অধিনায়ক হিসেবে অভিজ্ঞ সাকিবের জায়গায় শান্তর কথাই  মনে করা হচ্ছিলো।

বিসিবি ক্রিকেট অপারেশন্স চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস আজ সাংবাদিকদের বলেন, ‘সাকিব এখনও আমাদের অধিনায়ক। আমরা নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে মাত্র দু’টি সিরিজের জন্য অধিনায়ক করেছি শান্তকে।’

তিনি আরও বলেন, ‘দীর্ঘ মেয়াদের জন্য সাকিবকে অধিনায়কত্ব  দেওয়া হয়েছিলো। আমরা এখনও ক্রিকেটের সব ফরম্যাটেই অধিনায়ক হিসেবে সাকিবকেই বিবেচনা করি। সাকিব যখন ফিরবেন, আমরা আশা করি তিন ফরম্যাটেই দলকে নেতৃত্ব দিবেন।  সে দায়িত্ব পালনে রাজিহলে অন্য কিছু ভাবার সুযোগ নেই।’

বিশ্বকাপ চলাকালীন পাওয়া আঙুলের ইনজুরির কারনে মাঠের বাইরে আছেন সাকিব। এজন্য ঘরের মাঠে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজের পর কিউই সফরে আসন্ন ওয়ানডে এবং টি-টোয়েন্টি সিরিজও মিস করবেন তিনি। ঘরের মাঠে টেস্ট সিরিজে দলকে নেতৃত্ব দেন শান্ত।

সাকিবের অনুপস্থিতিতে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজে অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করবেন শান্ত।
ইউনুস বলেন, ‘সাকিব অধিনায়ক হবে, নাকি হবে না, এমন প্রশ্ন আসেনি। কারন সাকিব জানেন এখনও তিন ফরম্যাটের অধিনায়ক আছেন এবং আমরা তাকে অধিনায়ক হিসেবেই বিবেচনা করি।’

জাতীয় দলে  আরও মনোযোগি হবার জন্য আসন্ন আইপিএল ও পিএসএলে খেলবেন না বলে সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রে আওয়ামী লীগের এক অনুষ্ঠানে জানিয়েছেন মাগুরা-১ আসন থেকে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পাওয়া সাকিব। তিনি জানান, দেশের হয়ে খেলতে বিশ্বের ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগগুলো এড়িয়ে যাবেন।

সাকিবের এমন মন্তব্যে উচ্ছসিত বিসিবি। তারা জানিয়েছে, বাংলাদেশের হয়ে সাকিব সব ম্যাচ খেললে দলই উপকৃত হবে।
ইউনুস বলেন, ‘এটি আমাদের জন্য খুবই ভালো খবর। আমরা চাই, দেশের হয়ে সব ফরম্যাটে সব ম্যাচ খেলুক সে। আপনি জানেন, তার উপস্থিতি সবসময়ই দলকে অনুপ্রাণিত করে।’

বিশ্বকাপে নয় ম্যাচ খেলে মাত্র দু’টিতে জিতেছিলো বাংলাদেশ। ২০০৭ সালের বিশ্বকাপের পর ক্রিকেটের মেগা ইভেন্টে সবচেয়ে বাজে ফলাফল করে টাইগাররা।

বিশ্বকাপে  বাংলাদেশ দলের  ব্যর্থতা অনুসন্ধানে ইতোমধ্যে একটি বিশেষ কমিটি গঠন করেছে বিসিবি। ইতোমধ্যে প্রধান কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহ এবং কয়েকজন খেলোয়াড়কে ডেকেছে  কমিটি। কিন্তু সাকিবের বক্তব্যের জন্য এখনও তাকে ডাকেনি কমিটি।
 

সূত্র : বাসস

পুরোনো সংখ্যা

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১