বোর্নমাউথের কাছে বিধ্বস্ত ইউনাইটেড, শীর্ষে ফিরেছে লিভারপুল – প্রিমিয়ার লিগ


অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশের সময় : ডিসেম্বর ১০, ২০২৩ । ৫:৩৬ অপরাহ্ণ
বোর্নমাউথের কাছে বিধ্বস্ত ইউনাইটেড, শীর্ষে ফিরেছে লিভারপুল – প্রিমিয়ার লিগ

প্রিমিয়ার লিগে ঘরের মাঠ ওল্ড ট্রাফোর্ডে আবারো বড় পরাজয়ের স্বাদ পেয়েছেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। শনিবার বোর্নমাউথের কাছে ৩-০ গোলে বিধ্বস্ত হয়েছে এরিক টেন হাগের দল। দিনের আরেক ম্যাচে ক্রিস্টাল প্যালেসকে ২-১ গোলে পরাজিত করে টেবিলের শীর্ষে উঠে এসেছে লিভারপুল।

লিভারপুল বস জার্গেন ক্লপ স্বীকার করেছেন ১০ জনের প্যালেসের বিপক্ষে জেতাটা ছিল সৌভাগ্যের। জর্ডান আইয়ুর দ্বিতীয় লাল কার্ডের কারনে ৭৫ মিনিটে প্যালেস ১০ জনের দলে পরিনত হবার পর ম্যাচের চেহারা পাল্টে যায়। এই জয়ে দিনের শুরুতে আর্সেনালকে এক পয়েন্ট পিছনে ফেলে টেবিলের শীর্ষে উঠে এসেছিল লিভারপুল।

কিন্তু নিজেদের ম্যাচে এ্যাস্টন ভিলার কাছে ১-০ গোলে পরাজিত হয়ে শীর্ষস্থান পুনরুদ্ধারে ব্যর্থ হয়েছে গানার্সরা।
তৃতীয় স্থানে থাকা ভিলা ঘরের মাঠে লিগে টানা ১৫ জয়ের মাধ্যমে ক্লাব রেকর্ড করেছে। লিভারপুলের থেকে তারা এখন মাত্র দুই পয়েন্ট পিছিয়ে রয়েছে।

ইউনাইটেডের মাঠে এই প্রথমবারের মত লিগে জয় নিশ্চিত করেছে বোর্নমাউথ। এর ফলে মৌসুমে নতুন করে সমস্যা পড়লো রেড ডেভিলসরা। যে কারনে কোচ এরিক টেন হাগের উপর নতুন করে চাপ বাড়লো। বিশেষ করে সপ্তাহের মাঝামাঝিতে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ থেকে  বিদায়ের শঙ্কায় অনেকটাই আত্মবিশ^াসের ঘাটতি দেখা দিয়েছে ইউনাইটেড শিবিরে।

ম্যাচ শুরুর পাঁচ মিনিটের মধ্যে লুইস কুকের ক্রস থেকে ডোমিনিক সোলাঙ্কে বোর্নমাউথকে এগিয়ে দেন। ৬৮ মিনিটে মার্কোস টাভেরনিয়ার্সের ক্রসে ফিলিপ বেলিং ব্যবধান দ্বিগুন করেন। ৭৩ মিনিটে মার্কোস সেনেসি আনডোনি ইরায়োলার দলকে দারুন জয় উপহার দেন।

ম্যাচ শেষে টেন হাগ বলেছেন, ‘আমি মনে করি দল হিসেবে আজ আমরা যথেষ্ট ভাল খেলতে পারিনি। আমাদের অবশ্যই বেশ কয়েকটি জায়গায় উন্নতি করতে হবে। অবশ্যই আমি হতাশ।’

ভিলা পার্কে উনাই এমেরির দল ভিলা  দারুনভাবে জয়ের ধারা ধরে রেখেছে। আগের ম্যাচে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ম্যানচেস্টার সিটিকে ১-০ গোলে পরাজিত করেছিল ভিলা। এবার আরো একটি বড় দলকে হারিয়ে তারা যোগ্যতার প্রমান দিয়েছে।

জন ম্যাকগ্রিনের সাত মিনিটের গোলে ভিলা এগিয়ে যায়। লিওন বেইলের পাসে স্কটিশ এই মিডফিল্ডার শক্তিশালি ফিনিশিংয়ে পোস্টের খুব কাছ থেকে ডেভিড রায়াকে পরাস্ত করেন। ম্যাচের শেষ ভাগে ভিএআর নাটকীয়তায় আর্সেনালের একটি গোল বাতিল হয়ে যায়।

স্টপেজ টইিমে কেই হাভার্টজের গোলকে হ্যান্ডবলের কারনে বাতিল করে ভিএআর। ভিলা বস উনাই এমেরির জন্য এটি একটি স্মরণীয় মুহূর্ত। ২০১৯ সালে দুই বছরের কম সময়ের মধ্যে আর্সেনাল থেকে তিনি বরখাস্ত হয়েছিলেন। গত মৌসুমে ভিয়ারিয়াল থেকে আসার পর ভিলাকে নতুনভাবে গঠন করেন এমেরি।

শেষ পাঁচ ম্যাচে চতুর্থ জয়ে ১৯৮১ সালের পর প্রথমবারের মত লিগ শিরোপা জয়ের আশা জাগিয়ে তুলেছে ভিলা।
এদিকে পাঁচ ম্যাচে এটি আর্সেনালের প্রথম পরাজয়। বাতিল হওয়া গোল প্রসঙ্গে আর্তেতা বলেছেন, ‘আমার কাছে গোলটি স্পষ্ট ছিল। আজ যেভাবে পুরো দল খেলেছে আমি দারুন গর্বিত। এই ম্যাচে জয়টা আমাদের প্রাপ্য ছিল।’

ভিলার শিরোপা জয় প্রসঙ্গে এমেরি বলেছেন, ‘কঠিন একটি সপ্তাহে এই তিন পয়েন্ট অর্জন দারুন ছিল। আমাদের অবশ্যই খুশী হওয়া উচিত।’সেলহার্স্ট পার্কে দারুন লড়াই করে লিভারপুল শিরোপা জয়ের পথে সঠিকভাবেই এগিয়ে চলেছে।

প্রথমার্ধে প্যালেস জ্যারেল কুয়ানসাহর বিপক্ষে জিন-ফিলিপ মাতেতাকে ফাউলের কারনে পেনাল্টির আবেদন করে সফল না হলেও ভিএআর তা উপহার দেয়। স্পট কিক থেকে মাতেতা প্যালেসকে এগিয়ে দেন। কিন্তু দুটি বিতর্কিত হলুদ কার্ডে আইয়ুকে মাঠ ছাড়তে হলে প্যালেস বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে।

লিভারপুল সেই সুবিধাকে কাজে লাগিয়ে ম্যাচে ফিরে আসে। ৭৬ মিনিটে মোহাম্মদ সালাহর ডিফ্লেকটেড শটে সমতায় ফিরে লিভারপুল। ক্লাবের হয়ে এটি সালাহর ক্যারিয়ারের ২০০তম গোল। ৯১ মিনিটে বক্সের বাইরে থেকে শক্তিশালী শটে সফরকারীদের জয় উপহার দেন বদলী খেলোয়াড় হার্ভে এলিয়ট।

টেবিলের তলানিতে থাকা শেফিল্ড ইউনাইটেড ১-০ গোল ব্রেন্টফোর্ডকে পরাজিত করেছে। ব্রাইটনের সাথে ১-১ গোলে ড্র করে গোল ব্যবধানে তলানির থেকে এক ধাপ উপরে নিজেদের জায়গা ধরে রেখেছে বার্নলি। টানা  চার ম্যাচে পরাজয়ের বৃত্ত  থেকে বেরিয়ে উল্ফসের সাথে ১-১ গোলে ড্র করেছে নটিংহ্যাম ফরেস্ট।

 

সূত্র : বাসস

পুরোনো সংখ্যা

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১