তারেক রহমানের “দ্যা মিডনাইট গার্ল” সেরা স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র


বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশের সময় : ডিসেম্বর ৯, ২০২৩ । ৩:১৯ অপরাহ্ণ
তারেক রহমানের “দ্যা মিডনাইট গার্ল” সেরা স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র

বর্তমান প্রজন্মের প্রতিভাবান জনপ্রিয় নির্মাতা এস এম তারেক রহমান। প্রতিটি কাজ নিখুঁত ভাবে নির্মাণ করেন বলেই দর্শকদের পছন্দের নাম এস এম তারেক রহমান। শোবিজ অঙ্গনে সরব উপস্থিতি তার। ব্যাক টু ব্যাক জনপ্রিয় কাজ দিয়ে আলোচনায় এসেছেন বহুবার। তার কাজের প্রশংসায় পঞ্চমুখ সকলেই। সেই ধারাবাহিকতায় সম্প্রতি সিলেট এগ্রিকালচার ইউনিভার্সিটি আয়োজিত পঞ্চম তম সিলেট ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভলে “দ্যা মিডনাইট গার্ল” এর জন্য সেরা পরিচালকের পুরস্কার পেলেন এস এম তারেক রহমান।

এই উৎসবে বিশ্বের ১১১ টি দেশ থেকে ৩ হাজার ৬৫ চলচ্চিত্র জমা দেওয়া হয়। সেখান থেকে বিচারকদের রায়ে মোট ৯ টি ক্যাটাগরিতে পুরস্কার প্রদান করা হয়। সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় চলচ্চিত্র সংসদের প্রধান উপদেষ্টা এবং সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র পরামর্শ ও নির্দেশনা দপ্তরের পরিচালক প্রফেসর ড. মোহাম্মদ আতিকুজ্জামান সেরা পরিচালকের” পুরস্কার তারেক রহমান এর হাতে তুলে দেন।

তারেক রহমানের “দ্যা মিডনাইট গার্ল” চলচ্চিত্রটি একটি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র। এই চলচ্চিত্রে একজন মধ্যবয়সী নারীর জীবনের গল্প তুলে ধরা হয়েছে।

পুরস্কার প্রাপ্তির পর তারেক রহমান বলেন, “আমি একজন তরুণ ফিল্ম মেকার হিসেবে বলতে পারি সিলেট পঞ্চম তম ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল নিঃসন্দেহে একটি ভাল উদ্যোগ। আমি খুবই আনন্দিত বিচারকদের রায়ে আমাকে সেরা স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র পরিচালক হিসেবে পুরস্কার প্রদান করেছেন। আমি সব সময় চেয়েছি মানুষের জীবন বোধের গল্প বলতে। এ যাত্রা আমার অব্যাহত থাকবে। পুরস্কার কাজের স্বীকৃতি প্রদান করে না তার পাশাপাশি দায়িত্ব বাড়িয়ে দেয়। আমার এই স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রটি দর্শকদের জন্য অবমুক্ত করা হয়েছে এবং আমি প্রচুর ভালোবাসা পাচ্ছি তাদের কাছ থেকে। আরও বেশি কাজ করার অনুপ্রেরণা পাচ্ছি। আমার ভালো লাগছে যে তারা আমার কাজকে গ্রহণ করেছে। আমি যেন ঠিক এর ধারাবাহিকতায় সামনের কাজগুলো দায়িত্ব নিয়ে এবং এবং দর্শকদের চাহিদা মোতাবেক কাজ করে যেতে পারি।”

তারেক রহমান শুধু বাংলাদেশেই নয় আন্তর্জাতিকভাবেও স্বীকৃত পেয়েছেন তিনি। তিনি ৬১টি টেলিভিশন একক নাটক নির্মাণ করেছেন। তার মধ্যে অন্যতম হলো “লাইভ সাপোর্ট”, “অনুভবে তুমি”, “একটি জীবনের গল্প”, “ঘাস ফড়িং এর প্রেম”, “জয়ী”, “সেই তুমি”, “স্যাড এন্ডিং” সহ অসংখ্য নাটক উপহার দিয়েছেন তিনি।

তিনি পুরস্কারটি পেয়ে খুবই আনন্দিত এবং সামনে তার আরো ভালো কাজের দায়িত্ব বেড়ে গিয়েছে বলে তিনি জানিয়েছেন।

পুরোনো সংখ্যা

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১