সর্বশেষ :

মানিকগঞ্জে ভেজাল মধুর কারবার, প্রশাসনের অভিযান


জাহাঙ্গীর আলম, বিশেষ প্রতিনিধি
প্রকাশের সময় : ডিসেম্বর ৭, ২০২৩ । ৫:৫৫ অপরাহ্ণ
মানিকগঞ্জে ভেজাল মধুর কারবার, প্রশাসনের অভিযান

মানিকগঞ্জ জেলা শহরের সেওতা এলাকায় এক দম্পতি মৌচাকের খোসার একাংশ, চিনি, রং ও বিভিন্ন ফ্লেভারযুক্ত কেমিক্যাল মিশিয়ে বিশেষ পদ্ধতিতে ভেজাল মধু তৈরি করে বিভিন্ন জায়গায় বিক্রি করে যাচ্ছেন।  তারা দীর্ঘ ৭ বছর ধরে নকল মধু তৈরি করে আসছে বলে এলাকাবাসীর অভিযোগ।

এদিকে, বুধবার (৬ ডিসেম্বর) বুধবার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালায় মানিকগঞ্জ জেলা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। এ সময় ৫টি পাতিলভর্তি ক্ষতিকর রং ও কেমিক্যাল দিয়ে তৈরি প্রায় এক মন ওজনের শতভাগ নকল মধু জব্দ করে অভিযানিক দল। পরে জনসমূক্ষে তা বিনষ্ট করা হয়। তবে অভিযানিক দলের উপস্থিতি টের পেয়ে শটকে পড়ে অজ্ঞাত ওই দম্পতি।

সেওতা এলাকার বাসিন্দা আব্দুল মজিদ বলেন, ওই দম্পতি প্রায় ৭ বছর যাবত বাসা ভাড়া নিয়ে এই অপকর্ম চালিয়ে যাচ্ছে। আশপাশের লোক টের পেয়ে বিষয়টি প্রশাসনকে অবহিত করার পর এই অভিযান চালানো হয়।

একই এলাকার বাসিন্দা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, মৌচাক থেকে সংগ্রহকৃত খাঁটি মধু বলে চড়া দাম বিক্রি করে আসছে আসছে শতভাগ নকল মধু। যেখানে মধুর কোন অস্তিত্বই নাই। স্বাস্থ্যের জন্য মারাত্মক হুমকি এই অপকর্ম বন্ধে প্রশাসনকে আরো কঠোর পদক্ষেপ নেওয়ার প্রত্যাশা করেন তিনি।

এ বিষয়ে মানিকগঞ্জ জেলা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক আসাদুজ্জামান রুমেল বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বুধবার সকাল সাতটার দিকে শহরের সেওতা এলাকার একটি বাড়িতে অভিযান পরিচালনা করি। অভিযান কালে চিনি, রং, মৌচাকের খোসার একাংশ ও বিভিন্ন ফ্লেভার দিয়ে তৈরি প্রায় এক মন নকল মধু জব্দ করি। পালিয়ে যাওয়া ওই দম্পতি দীর্ঘদিন যাবত এই নকল মধু তৈরি ও বাজারজাত করে আসছিল। আমাদের উপস্থিতি টের পেয়ে ওই দম্পতি শটকে পড়ে। তবে বাজার জাতের অপেক্ষায় তৈরি প্রায় এক মন শতভাগ নকল মধু বিনষ্ট করা হয়েছে। জনস্বার্থে অভিযান অব্যাহত থাকবে।

পুরোনো সংখ্যা

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১