নোয়াখালী-৪ আসনে মনোনয়ন জমা দিলেন স্বতন্ত্র প্রার্থী শাহীন


সামছুল ইসলাম, নোয়াখালী জেলা প্রতিনিধি
প্রকাশের সময় : নভেম্বর ৩০, ২০২৩ । ৫:০৩ অপরাহ্ণ
নোয়াখালী-৪ আসনে মনোনয়ন জমা দিলেন স্বতন্ত্র প্রার্থী শাহীন

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নোয়াখালী-৪ (সদর,সুবর্ণচর) মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি এডভোকেট শিহাব উদ্দিন শাহীন।

 

এসময় উপস্থিত ছিলেন নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সুবর্ণচর উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ খায়রুল আনম সেলিম,ভাইস চেয়ারম্যান মো: বাহার, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব আব্দুজ জাহের, সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান নাসেরসহ বিভিন্ন ইউনিয়ন চেয়ারম্যানবৃন্দ।

 

তিনি আজ বৃহস্পতিবার দুপুর ১১ ঘটিকার সময় জেলা রিটার্নিং অফিসার ও পরবর্তীতে সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তার (ইউএনও) কাছে মনোনয়ন পত্র জমা দেন।

 

এ্যাডভোকেট শিহাব উদ্দিন শাহীন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ও স্পীকার আবদুল মালেক উকিলের ভাতিজা ও মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সন্তান। বর্তমানে নোয়াখালী জেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি হিসাবে দায়িত্ব পালন করছেন।

 

বঙ্গবন্ধুর আদর্শে রাজনীতি শুরু করা শাহীন বর্তমানে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার একজন আদর্শ কর্মী হিসেবে রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত আছেন  এবং জাতীয় সংসদ নির্বাচন, উপজেলা নির্বাচন এবং ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে রাজনৈতিক দায়িত্বে দীর্ঘদিন সক্রিয় ভূমিকা পালন করে আসছেন।

 

আশি-নব্বইর দশকে এক দুঃসাহসী সংগ্রামী ছাত্রনেতা থেকে নোয়াখালী জেলা ছাত্রলীগের সর্বকনিষ্ঠ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন এবং পরবর্তীতে ১৯৯৩ সালে নোয়াখালী জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছিলেন পরবর্তীতে তিনি সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এরপর সভাপতি নির্বাচিত হয়েছিলেন।

 

যিনি ১৯৯৬ ইং সালে খালেদা জিয়ার ১৫ই ফেব্রুয়ারির সাজানো নির্বাচন প্রতিহত করতে অগ্রনী ভুমিকা পালন করেছেন এবং খালেদা জিয়া বিরোধী আন্দোলনে ১৯৯৬ সালে ১৯ দিন কারাবরনকারী তৃণমূল থেকে বেড়ে উঠা দুঃসময়ের ছাত্র ও যুবনেতা। তিনি নোয়াখালী জেলা আওয়ামীলীগের সফল যুগ্ম আহ্বায়ক।

 

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সমর্থিত প্রার্থী হয়ে তিনি ২০০৯ থেকে ২০১৯ সাল সদর উপজেলা পরিষদের দুইবারের নির্বাচিত চেয়ারম্যান, এই সময় একজন পরিচ্ছন্ন রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব সম্পন্ন  ভদ্র, সৎ মানুষ ও শিক্ষিত (চেয়ারম্যান) হিসাবে জনগনের ভালোবাসা ও আন্তরিকতার  সাথে দায়িত্ব পালন করেছেন।

 

তিনি নোয়াখালী জিলা স্কুলের ছাত্র ছিলেন ও নোয়াখালী সরকারী কলেজ থেকে এইচএসসি এবং জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মাস্টার্সের ডিগ্রি লাভ করেন এবং পরবর্তীতে এলএলবি কমপ্লিট করেন। তিনি বাংলাদেশ রেডক্রিসেন্ট সোসাইটির কেন্দ্রীয় কমিটির ২০১৪ থেকে বর্তমানে ৪র্থ বারের মতো সদস্য নির্বাচিত হয় দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি বাংলাদেশ পরিবার পরিকল্পনা সমিতি (FPAB)নোয়াখালী শাখার কোষাধক্ষ্য এবং সাধারণ সম্পাদক হিসাবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

 

গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা এম পি হাত থেকে শ্রেষ্ঠ যুব সংগঠনের পুরুষ্কার (২০১৬) প্রাপ্ত সংগঠন  ধ্রুবতারা ইউথ ডেভলপমেন্ট ফাউন্ডেশন কতৃক নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের কিংবদন্তি পরিচ্ছন্ন রাজনীতিবিদ প্রিয় নেতা এডভোকেট শিহাব উদ্দিন শাহিন কে পলিটিক্যাল ক্যাটাগরিতে বাংলাদেশ ইউথ সামিট ২০২২ এ সম্মাননার জন্য নির্বাচন করা হয়। জাতীয় সংসদের মাননীয় স্পিকার এ্যাডভোকেট শিরিন শারমিন এম পি মহোদয়ের হাত থেকে সম্মাননা কেষ্ট গ্রহন করেন।

 

এডভোকেট আলহাজ্ব শিহাব উদ্দিন শাহীন বর্তমানে নোয়াখালী জেলা আওয়ামীলীগের একমাত্র ঠিকানা। নোয়াখালী জেলার বিভিন্ন  স্কুল, কলেজ, মসজিদ ও মাদরাসার সভাপতি হিসাবে গর্বের সাথে দায়িত্ব পালন করে আসছেন।

 

সাংগঠনিকভাবে দক্ষ বিচক্ষন রাজনৈতিক কর্মীদের বিশ্বাস ও আস্থার ঠিকানা জনপ্রিয় জননেতা এডভোকেট শিহাব উদ্দিন শাহীন আগামী নির্বাচনে সকল ষড়যন্ত্রের মোকাবেলায় উপযুক্ত ব্যক্তি।

 

শাহীনকে নিয়ে জেলা আওয়ামী লীগের এক প্রবীণ নেতা বলেন, শাহীন দলের ত্যাগীও পরিক্ষিত কর্মী। আওয়ামী পরিবারের সন্তান। নম্র, ভদ্র ও শিক্ষিত একজন ব্যক্তি। পেশায় উনি একজন আইনজীবী, দলের কর্মীরা সব সময় উনার কাছে সহযোগিতা পেয়েছেন এবং ভবিষ্যতেও পাবেন।

 

উনার বক্তৃতায় নিজ দলের কর্মীরা উজ্জীবিত হয়। উনার বক্তৃতায় বিরোধী দলের কর্মীরা ভয়ে সংকুচিত থাকে। তৃণমূলের প্রতিটা কর্মীর সাথে উনার সু-সম্পর্ক রয়েছে। তিনি দলের কর্মীদের সুখে-দুখে পাশে থেকে কাজ করছেন। । দলের কর্মীর প্রয়োজনে ওনার সামর্থ্য অনুযায়ী সাহায্য সহযোগিতা করেন।

 

দেশ যখন অসৎ, চরিত্রহীন, দুর্নীতিবাজ রাজনৈতিক নেতায় সয়লাব সেখানে আলহাজ্ব এডভোকেট শিহাব উদ্দিন শাহীনের মত সততা, নিষ্ঠা ও চরিত্রের মাধুর্যের আলো ছড়িয়ে যাচ্ছেন এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার লালিত স্বপ্ন “স্মার্ট বাংলাদেশ” গড়ার লক্ষ্যে দলের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন।

 

মনোনয়ন পত্র জমা শেষে এড. শাহীন বলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ আমাকে দলীয় মনোনয়ন দেয়নি কিন্তু সদর-সুবর্ণচরের নেতা-কর্মীদের সাথে নিয়ে আমি স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছি এবং ইনশাআল্লাহ  আমি বিপুল ভোটে জয়লাভ করবো।

পুরোনো সংখ্যা

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০