সর্বশেষ :

নন্দীগ্রামে শিক্ষক পদে চাকরি দেয়ার নামে দেড় লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিল প্রতারক চক্র


শাহীন আলম সাজু, নন্দীগ্রাম (বগুড়া) প্রতিনিধি
প্রকাশের সময় : নভেম্বর ২৬, ২০২৩ । ১:৪৯ পূর্বাহ্ণ
নন্দীগ্রামে শিক্ষক পদে চাকরি দেয়ার নামে দেড় লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিল প্রতারক চক্র
প্রতীকী ছবি

বগুড়ার নন্দীগ্রামে এক বে-সরকারি প্রাথমিক  বিদ্যালয়ে সহকারি শিক্ষক পদে চাকরি পাইয়ে দেওয়ার কথা বলে দুই দফায় ১ লক্ষ ৬০ হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়েছে প্রতারক চক্র। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার ৪নং থালতা-মাঝগ্রাম ইউনিয়নের আমড়া গোহাইল গ্রামে।

এই ঘটনায় ভুক্তভোগী আমড়া গোহাইল গ্রামের মৃত রাজা মিয়ার ছেলে এস এম মেহেদি হাসান রুবেল বাদী হয়ে সেই ৩ প্রতারকের নামে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে। তারা হলেন, উপজেলার আমড়া গোহাইল গ্রামের মৃত কায়েম উদ্দিনের ছেলে আঃ হান্নান, চকতালগোচি গ্রামের আঃ ছালাম এবং আটান গ্রামের আঃ রহমান। অভিযোগের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নন্দীগ্রাম থানার এএসআই মামুন।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, আটান বে-সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী-শিক্ষক পদে চাকরি পাইয়ে দেওয়ার কথা বলে এই চক্র ভুক্তভোগী মেহেদি হাসান রুবেলের কাছ থেকে ২০১৮ সালে ১লক্ষ টাকা নেন। পুনরায় ২০২০ সালে আবারো ৬০ হাজার টাকা নেন। ভুক্তভোগী মেহেদি হাসান রুবেল যখন বুঝতে পারেন সে প্রতারকের খপ্পরে পরেছেন তখন উক্ত টাকা ফেরত চাইলে প্রতারক চক্রটি ভুক্তভোগীকে বিভিন্ন ভয়ভীতি ও হুমকি প্রদান করে। বিষয়টি নিয়ে স্থানীয় ভাবে মিমাংসার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন ভুক্তভোগী মেহেদি হাসান রুবেল। অবশেষে আইনের আশ্রয় গ্রহনে থানায় ৩ প্রতারকের নামে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগের বিষয়ে ১নং অভিযুক্ত আঃ হান্নানের কাছে জানতে চাইলে তিনি শিক্ষক পদে চাকরি পাইয়ে দেওয়ার কথা বলে টাকা নেওয়ার বিষয়টি স্বীকার করেন এবং তিনি টাকা ফেরত দিয়ে দিবে বলেও জানান।

এবিষয়ে ভুক্তভোগী মেহেদি হাসান রুবেল বলেন, শিক্ষক পদে চাকরির জন্য জমি বন্ধক রেখে তাদের টাকা দিয়েছিলাম এখন চাকরিও দিচ্ছেনা এবং টাকা ফেরতও দিচ্ছেনা। তাই আইনের আশ্রয় নিয়েছি।

উক্ত বিষয়ে নন্দীগ্রাম থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আজমগীর হোসাইনের সাথে কথা বললে তিনি জানান, অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত সাপেক্ষে অতি দ্রুত আইনানুক ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

পুরোনো সংখ্যা

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০